ফার্স্ট এইড কেন গুরুত্বপূর্ণ তার ১০ টি কারণ

ফার্স্ট এইড কেন গুরুত্বপূর্ণ তার ১০ টি কারণ

যখন কেউ অসুস্থ বা আহত হয়, তাদের অবশ্যই তাৎক্ষণিক সাহায্যের প্রয়োজন হয়। ফার্স্ট এইড হল তাৎক্ষণিক চিকিৎসা যা একজন ব্যক্তির জীবন বাঁচাতে পারে, পরিস্থিতি খারাপ হওয়া থেকে রোধ করতে পারে বা কাউকে দ্রুত সেরে উঠতে সাহায্য করতে পারে। চিকিৎসার সকল পেশাজীবী প্রাথমিক চিকিৎসায় সম্পূর্ণভাবে প্রশিক্ষিত, কিন্তু অন্যান্য পেশাজীবীদের ও প্রাথমিক চিকিৎসা জানার প্রয়োজন হয়। সবসময় প্রয়োজন না হলেও প্রাথমিক চিকিৎসা জানা অত্যন্ত উপকারী হতে পারে। কিন্তু কেন? জানতে হলে নিচের লেখা মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

ফার্স্ট এইড কেন গুরুত্বপূর্ণ তার ১০ টি কারণ জানুন:

১। ফার্স্ট এইড ব্যক্তির জীবন বাঁচাতে পারে

ফার্স্ট এইড গুরুত্বপূর্ণ কারণ এটি কারো জীবন বাঁচাতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে জরুরী চিকিৎসা প্রয়োজন যেখানে সময় খুব কম থাকে। একজন অসুস্থ বা আহত ব্যক্তি ডাক্তার না আসা পর্যন্ত বেশিক্ষণ থাকতে পারবেন না, বিশেষ করে যদি ডাক্তারের পক্ষে তাদের কাছে পৌঁছানো কঠিন হয়। সেখানে যদি এমন কেউ থাকে যে প্রাথমিক চিকিৎসা জানে, তারা CPR এর মতো সাহায্য প্রদান করে ব্যক্তির জীবন বাঁচাতে পারে।

2। এটি ব্যথা উপশম করে

বেশিরভাগ জরুরী চিকিৎসার সাথে ব্যথা জড়িত থাকে। এমনকি সাধারণ ঘটনাও যন্ত্রণার কারণে মারাত্মক হতে পারে। যিনি প্রাথমিক চিকিৎসা জানেন তিনি তাৎক্ষণিক ব্যথা উপশম করতে পারেন। এর মধ্যে একটি ফার্স্ট এইড কিট থেকে ব্যক্তিকে ব্যথার ওষুধ দেওয়া, একটি তাত্ক্ষণিক-অ্যাক্টিভেটিং কোল্ড প্যাক তৈরি করা, পোড়ার উপর ঠান্ডা জল ঢালা ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। প্রাথমিক চিকিৎসায় প্রশিক্ষিত যে কেউ নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে সঠিক ব্যথা উপশম পদ্ধতি জানতে পারবে।

৩। এটি সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারে

যখন কেউ আহত হয়, তখন সেই আঘাতের চিকিৎসার জন্য তারা যা করেন তা সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়াতে বা কমাতে পারে। সঠিক প্রশিক্ষণ ছাড়া, জিনিসগুলি আরও খারাপের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়। যেমন, অনেক লোক মনে করে একটি কাটা জীবাণুমুক্ত করার জন্য হাইড্রোজেন পারক্সাইড ব্যবহার করা গ্রহণযোগ্য। বাস্তবতা হল এই শক্তিশালী রাসায়নিক ক্ষত নিরাময়কারী কোষগুলির ক্ষতি করে। সঠিক প্রশিক্ষণ এবং দরকারি সরঞ্জাম (পরিষ্কার ব্যান্ডেজ, পরিষ্কার জল, সাবান, পেট্রোলিয়াম জেলি ইত্যাদি) সহ, আপনি ক্ষত নিরাময়  করতে পারেন এবং সংক্রমণ এড়াতে পারেন।

৪। আপনি ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে আরো ভালভাবে জানাতে পারেন

একজন ব্যক্তি যদি জরুরী অবস্থার সম্মুখীন হন এবং আপনি প্রাথমিক চিকিৎসা জানেন তাহলে আপনি তাকে সাহায্য করতে পারেন। তখন কী ঘটেছে তা ডাক্তার আসলে ভালভাবে ব্যখ্যা ও করতে পারবেন। অনেকসময় জরুরী পরিস্থিতিতে কোনো ব্যক্তি যোগাযোগ করার মতো অবস্থায় নাও থাকতে পারে, তবে আপনি জরুরী অবস্থার কারণ কী এবং সে সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে পারেন। এই তথ্য ডাক্তারকে রোগীর জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করে।

৫। এটি কর্মক্ষেত্রকে আরো নিরাপদ করে তোলে

কর্মক্ষেত্রে যত বেশি মানুষ প্রাথমিক চিকিৎসা সম্পর্কে জানবে, তত নিরাপদ। মেডিকেল ইমার্জেন্সি যেকোন সময় হতে পারে। সেখানে যদি শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি প্রাথমিক চিকিৎসা জানেন এবং সেও যদি সবার মত জরুরী অবস্থার শিকার হন তাহলে কি হবে? কোনো ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে প্রাথমিক চিকিৎসা জানা কর্মী থাকলে তাদের গ্রাহকদেরও নিরাপদ রাখতে সাহায্য করে। আপনি সম্ভাবনা অনুযায়ী যেকোনো জরুরী অবস্থার জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, আপনি একটি রেস্তোরাঁয় কাজ করেন এবং সেখানে যে কেউ নিজেকে পুড়িয়ে ফেলতে পারে, নিজেকে শরীরে কাটতে পারে বা শ্বাসরোধ করতে পারে। আপনি যদি বাইরে কোনো কন্সট্রাকশনের কাজ করেন তবে ডিহাইড্রেশন এবং হিটস্ট্রোকের সম্ভাবনা বেশি, বিশেষ করে গরমের সময়ে।

৬। শিশুদের নিরাপদ রাখতে ফার্স্ট এইড

শিশুরা প্রায়ই মেডিকেল ইমার্জেন্সির শিকার হয়। তারা অনেক বেশি দৌড়াঁয় এবং তাদের চারপাশের অবস্থার সাথে পরিচিত হতে পছন্দ করে। একজন ব্যক্তি খুব মনোযোগী অভিভাবক হলেও দুর্ঘটনা ঘটতে বেশি সময় লাগে না। শিশুরাও খুব দুর্বল এবং খিঁচুনির মত জিনিসে ভুগতে পারে। শিশুদের মধ্যে খিঁচুনি আসাটা বেশ সাধারণ এবং প্রায়ই কোন স্পষ্ট কারণ পাওয়া যায় না। তাই প্রাথমিক প্রাথমিক চিকিৎসা জানা অভিভাবকদের ছোটখাটো ছেঁড়া এবং ক্ষত (কোন হাইড্রোজেন পারক্সাইড নয়!) থেকে খিঁচুনির মতো আরও ভীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সহায়তা করে।

৭। এটা আপনার মানসিক শান্তিতে সাহায্য করে

ফার্স্ট এইড জানা থাকলে তা ইমারজেন্সি অবস্থায় আপনার ভয়কে উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে পারে। জীবন সম্পূর্ণরূপে অপ্রত্যাশিত ঘটনায় পূর্ণ যা আপনার নিয়ন্ত্রণের বাইরে ও হতে পারে। অনেকের জন্য সবচেয়ে বড় ভয় হল নিজের বা তাদের প্রিয়জনের সাথে যদি কিছু ঘটে থাকে। প্রাথমিক চিকিৎসা আপনাকে বিভিন্ন ভীতিকর পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত করে সেই উদ্বেগকে কিছুটা কমাতে পারে।

৮। ফার্স্ট এইড সম্পর্কে পর্যাপ্ত জ্ঞান কাজের সুযোগ সৃষ্টি করে

প্রাথমিক চিকিৎসা জানা থাকলে আপনি যে চাকরির জন্য আবেদন করতে পারেন তার সম্ভাবনা বাড়ায়। যেমন আগে উল্লিখিত হয়েছে যে, নির্দিষ্ট কিছু চাকরির জন্য আপনাকে প্রাথমিক চিকিৎসা জানা প্রয়োজন, তাই আপনি যদি একজন লাইফগার্ড, ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট, সোশ্যাল ওয়ার্কার, বা চাইল্ড কেয়ার প্রোভাইডার হিসেবে কাজ করতে চান তাহলে আপনার প্রাথমিক চিকিৎসা জানতে হবে। ফার্স্ট এইডের আপ-টু-ডেট প্রশিক্ষণ থাকাটাও ভালো দেখায় যদি আপনি এমন চাকরিতে আবেদন করেন যেখানে আপনি অনেক মানুষের সাথে কাজ করেন।

৯। এটি সেরে উঠার সময় হ্রাস করে

কাউকে প্রাথমিক চিকিৎসা না দেওয়ার ফলে মৃত্যু হতে পারে, তবে তারা বেঁচে থাকলেও সেরে উঠতে দীর্ঘস্থায়ী সময় লাগতে পারে। উদাহরণ স্বরূপ, যদি কারো ক্ষত থেকে রক্তক্ষরণ হয় এবং চিকিৎসা করার আগে কেউ তা বন্ধ করতে পারল না। তাহলে ব্যক্তির আরও বেশি রক্তক্ষরণ হবে, রক্তচাপ কমে যাবে এবং অঙ্গ ব্যর্থতার সূচনা হবে। কীভাবে রক্তপাত বন্ধ করা যায় এবং ক্ষতটি ড্রেসিং করা যায় তা জানা থাকলে সেরে উঠতে সহজ হয়।

১০। এটি অর্থের খরচ কমিয়ে দেয়

প্রাথমিক চিকিৎসা শুধুমাত্র জীবন বাঁচায় না – এটি খরচ কমিয়ে দেয়। কিভাবে? আপনি যদি ক্ষত বা সামান্য পোড়ার সাথে চিকিৎসা করতে জানেন তবে আপনি দুর্ঘটনাক্রমে এটিকে আরও খারাপ করবেন না, সংক্রমণ হবে নাএবং ডাক্তারের কাছে যেতে হবে না। প্রাথমিক চিকিৎসা আরও গুরুতর পরিস্থিতিগুলিকে মারাত্মক হতে বাধা দেয়, তাই হাসপাতালে যাওয়ার প্রয়োজন হলেও, চিকিৎসা জন্য ততটা খরচ হবে না।

পরিশেষে, প্রত্যেক পরিবারের অন্তত একটি করে ফার্স্ট এইড বক্স থাকা উচিত। ফার্স্ট এইড বক্স যেকোনো দূর্ঘটনায় আপনার জীবন ফিরিয়ে দিতে পারে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.