ব্রন কী এবং ব্রন কেন হয় ও এর চিকিৎসা

জনপ্রিয় বাংলা স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্লগ

ব্রন কী এবং ব্রন কেন হয় ও এর চিকিৎসা

ত্বকের সেবাসিয়াস গ্রন্থি থেকে সেবাম নামের এক ধরনের তৈলাক্ত পদার্থ নিঃসৃত হয়। এই গ্রন্থির নালির মুখ বন্ধ হয়ে গেলে সেবাম নিঃসরণ বাঁধা হয় এবং তা জমে ফুলে ওঠে , যা ব্রণ নামে পরিচিত। প্রায়ই ব্রণের চারপাশে প্রদাহ হয় এবং লাল হয়ে যায়। জীবাণুর সংক্রমণ হলে এতে পুঁজ হয়। সংক্রমণ সেরে গেলেও মুখে দাগ থেকে যেতে পারে।

ব্রন কেন হয়?

সুনির্দিষ্ট কারণ নিশ্চিত না হলেও হজমের সমস্যা , অ্যালকোহল , বয়সন্ধিকালে হরমোনের প্রভাবে ব্রণ হয় । বংশগত কারণও অন্যতম । প্রোপাইনি ব্যাক্টেরিয়াম একনিস নামের এক ধরনের জীবানু এর জন্য দায়ী হতে পারে।

ব্রনের প্রকারভেদঃ

  1. ট্রপিক্যাল একনি
  2. প্রিমেন্সট্রুয়াল একনি
  3. একনি কসমেটিকার
  4. একনি ডিটারজিনেকস
  5. স্টেরয়েড একনি

ব্রনের চিকিৎসাঃ

  • Syrup – Sofera
  • Calendulla Q
  • Echenecia Q
  • Bron Cure Ointment

সোফেরা: রক্ত দুষণ  ব্রন , দাঁদ , ত্বকের উপরে প্রদাহ পূর্ন চর্মরোগ , ফোঁড়া বিস্ফোটক , ত্বক নিন্মস্থ কোষ কলার পচন , গ্রন্থিবাত, গেটেবাত ও ত্বকের উজ্জলতা সুসংহত করতে এবং লাবন্যতা বৃদ্ধিতে কার্যকর।

উপাদানঃ

 নিম- রক্তসংশোধন করে এবং সকল প্রকার চর্মরোগ নিরাময় ও ত্বকের লাবন্য বৃদ্ধি করে।

নীলকণ্ঠীঃপাকস্থলী পরিষ্কার রাখে এবং বাত , গেটে বাত ও সকল প্রকার চর্মরোগ নিরাময়ে কার্যকর।

গোলাপফুলঃ রক্ত সংশোধন করে এবং স্কাবিস ও ব্রনসহ সকল প্রকার চর্মরোগ নিরাময়ে  কার্যকর।

রক্তচন্দনঃ রক্তসংশোধন  করে, স্কাবিস ও কাটা  ক্ষতসহ সকল প্রকার চর্মরোগ নিরাময়ে এবং ত্বকের লাবণ্যতা বৃদ্ধিতে কার্যকর ।

কাঞ্চন-ফূলঃ  রক্ত দূষণ , ব্রন , দাঁদ , ত্বকের প্রদাহ পূর্নচর্মরোগ , ফোড়া, বিস্ফোটক, চুলকানী, ত্বকনিন্মস্থ  কোষকলার পঁচন ত্বকের জ্বালাপোড়া নিরাময়ে এবং ত্বকের লাবণ্যতা বৃদ্ধিতে কার্যকর।

Calendula (ক্যালেন্ডূলা)- বিউটিশিয়ানরা ব্রণর চিকিত্সা এবং প্রতিরোধের একটি সরঞ্জাম হিসাবে ক্যালেন্ডুলা ফুলের টিঙ্কচারের প্রশংসা করেন। পণ্য পুরোপুরি সিবামের উত্পাদন নিয়ন্ত্রণ করে, ফোলাভাব থেকে মুক্তি দেয় এবং প্রদাহের কেন্দ্রবিন্দু শুকিয়ে যায়।

 Echenicia (ইচিনেশিয়া)- ইহা একটি উৎকৃষ্ট রক্ত সংশোধক ঔষধ। দেহের অভ্যন্তরস্থ জীবাণু দ্বারা রক্ত বিষাক্ততা , রক্ত দুষ্ট রোগে উদরাময় লক্ষণ।

Bron cure (ব্রন কিউর)- ব্রন, মুখের কালো দাগ বা মেছতায় বিশেষভাবে কার্যকর।

পার্শ প্রতিক্রিয়া – নির্ধারিত মাত্রায় কোন পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া নেই।

Share this post

Comments (3)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *